News

সরকার জন ধন অ্যাকাউন্টে ১০,০০০ টাকা জমা করছে, এই সুবিধাগুলি পাবেন

‘প্রধানমন্ত্রী জন ধন যোজনা’ ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অন্যতম সফল একটি পদক্ষেপ। ২০১৪ সালের ১৫-ই আগস্ট এই যোজনা শুরু করেছিলেন তিনি। পিছিয়ে পড়া অনগ্রসর পরিবারগুলিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে ও উন্নতি আনতে এই পদক্ষেপ নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সমস্ত পিছিয়ে পড়া পরিবারগুলিকে ব্যাঙ্কিংয়ের আওতায় আনতে ও তাদের ব্যাঙ্কিংয়ের মৌলিক সুবিধা প্রদানের জন্যই এই পদক্ষেপ নিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। এই নিবন্ধের সূত্র ধরে এই যোজনা সম্পর্কেই বিস্তারিতভাবে জানানো হবে।

এই প্রকল্পের সহায়তায় প্রত্যন্ত গ্রামেও ব্যাঙ্কিংয়ের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। এটি গ্রাহকদের দুর্ঘটনা বিমার আওতাধীন করে। এমনকি এটিতে ওভারড্রাফ্ট পেনশন বীমার সুবিধাও পেয়ে থাকেন গ্রাহকরা। এই যোজনার ক্ষেত্রে ব্যাঙ্কাররা গ্রামে গ্রামে গিয়ে গ্রামীণ বাসিন্দাদের এই অ্যাকাউন্ট খুলে দিয়েছে। পাশাপাশি অ্যাকাউন্টের সাথে লিঙ্ক করে দিয়েছে তাদের আধার নম্বরও। এই যোজনার আওতাধীন গ্রাহকরা ওভার ড্রাফট ছাড়াই নিজেদের ছোট ব্যবসা শুরু করার জন্য দশহাজার টাকা পেতে পারেন। এক্ষেত্রে তাদের কোনো রকম কোনো গ্যারান্টিও লাগবে না।

কিভাবে ‘প্রধানমন্ত্রী জন ধন যোজনা’তে অ্যাকাউন্ট খোলা হয়!
সবার প্রথমে সরকারের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট খুলতে হবে। এরপর সেই ওয়েবসাইটে লগইন করে নিজের পছন্দমতো ভাষা নির্বাচন করে নিতে হবে। এরপর স্ক্রিনে চলে আসবে যোজনার আবেদনপত্র। এরপর সেটি সঠিকভাবে সমস্ত তথ্য ও নথি সহযোগে জমা দিতে হবে।

অ্যাকাউন্ট খোলার যোগ্যতা-
১) শুধুমাত্র ভারতের পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায় এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।
২) দশবছরের কম বয়সে বাচ্চারাও নিজেদের বাবা-মায়ের সাথেই এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।
৩) বৈধ পরিচয়পত্র থাকা আবশ্যিক।
৪) সেভিংস অ্যাকাউন্ট খুলতে যে ধরনের নিয়মগুলি পালন করতে হয়, এক্ষেত্রেও সেই নিয়মগুলি পালন করা আবশ্যিক।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button