TechTricks

বহুল প্রতীক্ষার পর অবশেষে আসছে Raspberry Pi 5 🍓

ভূমিকা

সিঙ্গেল বোর্ড কম্পিউটারের (SBC) অস্তিত্ব গত দশক ধরেই বিদ্যমান। এসব বোর্ডের হরেক রকম মডেল পাওয়া গেলেও রাস্পবেরী পাই সবচেয়ে জনপ্রিয়। এর কারনও খুব সোজাঃ

* ন্যায্য দাম

* ওপেন সোর্স

* ভালো কমিউনিটি সাপোর্ট

* অনেক অ্যাক্সেসরিজ সাপোর্ট

* লো, মিড, হাই সব বাজেটের মডেল বিদ্যমান

ক্রেডিট কার্ড সাইজের ছোট্ট এই মেশিনটি ২০১২ সালে মার্কেটে আসার পর থেকেই শখের সাইন্টিস্ট, স্কুল কলেজের স্টুডেন্টসহ অনেক প্রযুক্তিপ্রেমীর কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ইলেকট্রনিকসের হাতেখড়িতে এর জুড়ি মেলা ভার। রাস্পবেরী পাই ফাউন্ডেশনের অধীনে নির্মানকৃত এই সিরিজটি একাধিক ভার্শন পার করেছে, যার লেটেস্ট মডেল রাস্পবেরী পাই ৫

২৮ সেপ্টেম্বর তাদের প্রকাশিত ব্লগ অনুযায়ী, আগের ভার্শন (RP4) থেকে বর্তমান মডেল তিনগুন ফাস্টার, শক্তিশালী চিপসেট, PCIe lane,BCM2712 পাওয়ার বাটনসহ আরো অনেক নতুন ফিচারস সম্বলিত হওয়ার সত্ত্বেও দাম ও সাইজ প্রায় অপরিবর্তিত।

রাস্পবেরী পাই ৫: একটি নতুন বিপ্লব

২০১৯ সালে রাস্পবেরী পাই ৪ যখন বাজারে আসে, ওটি ছিল পিসির সাথে তুলনাযোগ্য তাদের প্রথম মডেল। 1.5GHz স্পিডের Cortex-A72 প্রসেসরটি ছিল ওদের ২০১২ সালের মূল মডেলটি থেকে ৪০ গুন দ্রুততর।

২০২০ সালে Covid-19 এ পাইয়ের জনপ্রিয়তা আকাশ ছাড়িয়ে যায়। লাখ লাখ ঘরবন্দী উদ্যমীরা অসংখ্য প্রজেক্টে রাস্পবেরী পাই কাজে লাগায়। সাপ্লাই চেইনে গোলমাল থাকা সত্ত্বেও RP4 ১.৪ কোটি ইউনিট সেল করে।

কিন্তু রাস্পবেরী পাই চারই শেষ কথা নয়। প্রযুক্তি সর্বদাই বিকাশমান। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে পরিবর্তনের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে হয়। তাই ২০১৬ সাল থেকেই রাস্পবেরী ডেভেলপাররা পুরো প্লাটফর্মে একটা বড়সড় চেঞ্জ আনতে সচেষ্ট ছিলেন। তারই সুমিষ্ট ফল আজকের রাস্পবেরী পাই ৫ – সিরিজটির বর্তমান ফ্ল্যাগশীপ মডেল।

Raspberry Pi 5 Specification

Processor: Broadcom BCM2712; 64-bit 2.4GHz quad core Cortex-A76

GPU: VideoCore VII 800MHz (OpenGL ES 3.1, Vulkan 1.2 supported)

I/O: RP1 chip, 40-pin GPIO

RAM: 4GB/8GB LPDDR4X 4267MHz

Storage: microSD (high speed SDR104 supported)

Ports: 2×USB 3.0, 2×USB 2.0, 2×mini CSI/DSI, 2×micro HDMI ports, Gigabit Ethernet (PoE+ supported), PCIe 2.0 x1, standard 40-pin GPIO header

Wireless connectivity: 802.11ac WiFi, Bluetooth 5.0 (BLE)

Power: USB-C PSU; recommended 5V/5A, minimum 5V/3A

রাস্পবেরী পাই ফাইভের গুরুত্বপূর্ণ পার্টস

Procrssor: RP4’এ থাকা BCM2711 এর সাকসেসর রাস্পবেরী পাই পাঁচের BCM2712. ব্রডকমের এই চিপসেটটি পুরাতন ২৮ থেকে শিফট হয়ে ১৬ ন্যানোমিটার প্রসেস নোডে তৈরী। ২.৪ গিগাহার্জের প্রসেসরটিতে আছে Cortex-A76, 512KB L2 ও 2MB L3 cache. A72 থেকে A76 তিন জেনারেশন এগিয়ে যে জন্য এটায় বেশি IPC (instructions per clock) পাওয়া যায় তুলনামূলক কম এনার্জি ব্যয় করে।

Graphics Unit: সাথে থাকবে ব্রডকমেরই একটি গ্রাফিক্স ইউনিট – VideoCore VII. এটি একসাথে দু’টো 4Kp60 আউটপুট দিতে সক্ষম – আগের মডেল থেকে ডাবল! ভালো কথা, H265 ডিকোডিং সাপোর্টও অ্যাড করা হয়েছে এতে; মিডিয়া প্রেমীদের জন্য একটা আশীর্বাদ।

RP5 এবার চিপলেট বেসড অ্যাপ্রোচ নিয়েছে। কম্পিউটার হ্যার্ডওয়্যারের যারা হালচাল রাখেন তারা জানেন বেশ কয়েক বছর ধরেই প্রসেসর কোম্পানী AMD চিপলেট সিস্টেমে সিপিউ বানাচ্ছে।

মনোলিথিক, বা বড় এক টুকরো সিলিকনের পরিবর্তে এখানে ঐ সিলিকনকে ছোট ছোট টুকরো করে একেক টুকরোয় একেক ইউনিট সেট করে হাই ব্যান্ডউইথ ইন্টারকানেক্টের মাধ্যমে সংযোগ দেয়া হয়। এই পদ্ধতির বড় সুবিধা হল খরচ কমে আসে আর উৎপাদন হারও বাড়ানো যায়।

রাস্পবেরী পাই ফাইভেও চিপলেট দিয়ে ইউনিটগুলো আলাদা করা। মডুলার এই অ্যাপ্রোচে কেবল ফাস্ট কিছু ফাংশন, যেমন এসডি কার্ড ইন্টারফেস, HDMi, র‍্যাম ও PCIe মেইন প্রসেসরে রাখা।

Input Output  Controller: I/O ফাংশন, যেমন USB, Gigabit Ethernet, MIPI transceivers এগুলো RP1 নামক কন্ট্রোলারে শিফট হয়েছে। এটি একটি পুরাতন, সস্তা 40LP প্রসেস নোডে তৈরি কারন এখানে অত স্পিড দরকার নেই, সাথে খরচও কিছু বাঁচলো। একটি PCIe ইন্টারফেসের মাধ্যমে এটি মেইন প্রসেসরের সাথে যুক্ত।

ফোন, পিসি ফুল পাওয়ার অফ করার কয়েকদিন পরেও টাইম, ডেট কিন্তু ঠিক থাকে, কিভাবে জানেন? আমাদের ডিভাইসের ভেতর ছোট্ট একটা ব্যাটারী থাকে কেবল এই টাইমের সেটিংস সেভ রাখতে।

RP5 এও এবার অনেক রিকোয়েস্টেড এই ফিচার – রিয়েল টাইম ক্লক অ্যাড হয়েছে। সো সিস্টেম পুরো শাট ডাউন দিলেও টাইম ডেট ঠিক রাখা যাবে RTC ব্যাটারী দিয়ে।

হয়তো যারা এসব নিয়ে কাজ করেন নি তাদের কাছে ব্যাপারটা তুচ্ছ মনে হচ্ছে কিন্তু এটা অনেক দরকারী ছিল। একবার ভাবুন আপনার ফোন যদি প্রত্যেকবার চালুর সময় টাইম সেট করা লাগে তো কেমন লাগবে? অনেক প্রজেক্ট আছে পাওয়ার চলে গেলেও বিভিন্ন ইভেন্ট লগ করতে টাইম ঠিক রাখা লাগে।

আরেকটি সুন্দর ফিচার পাওয়ার বাটন। পিসির মতই এখন রাস্পবেরী পাই স্লিপ মোডে রাখা যাবে। হয়তো বলে দিতে হবে না কেন এটাও বেশ কাজের জিনিস।

পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট আইসি (PMIC) DA9091 সর্বোচ্চ ২০ অ্যাম্পিয়ার ফ্লো করতে পারবে।

আনুষঙ্গিক উপকরণ

অ্যাকটিভ কুলারঃ (৫ ডলার) পাই ৫ একটি পাওয়ারফুল ডিভাইস, আর যেখানেই পাওয়ার সেখানেই হিট। তাই প্রসেসর ঠান্ডা করতে চলে এলো অ্যাকটিভ কুলার মডিউল । হেভি লোডেও কুলারটি সিস্টেম পর্যাপ্ত ঠান্ডা রাখতে পারে। পাওয়ার হাংগ্রি প্রজেক্টে এটা কদর পাবে বেশি। সাথে ওভারক্লকিংয়েও একটা ভালো সম্ভাবনার আলো দেখা যায়।

কেসিংঃ (১০ ডলার) সেইম ডিজাইনের হলেও নতুন কেসিংয়ে বেশ কিছু ইমপ্রুভমেন্ট আনা হয়েছে। কেসের সাথে থাকছে একটি কুলিং ফ্যান, এয়ারফ্লো সিস্টেমও অপটিমাইজ করা। বলে রাখা ভালো, রাস্পবেরী পাই ফাইভের জন্য কেস কিনলে আর অ্যাকটিভ কুলারের দরকার হবে না, যেহেতু কেসের সাথেই অলরেডি ফ্যান আছে।

পাই ফাইভে এসডি কার্ড লাগাতে হয় উল্টা সাইডে, বা নিচের সাইডে। এসডি কার্ড লাগানোর পরেও যাতে বোর্ডটি কেসে ফিট হয় তার জন্য নিচে খানিক জায়গা রাখা হয়েছে। কেসে ঢাকনা বাদ দিয়ে সেইম আরো কেস একটার উপর আরেকটা স্ট্যাক করা সম্ভব। কেসের উপর বসানোর ব্যবস্থাও বাদ যায় নি 🤠

২৭ওয়াট টাইপ-সি পাওয়ার সাপ্লাইঃ (১২ ডলার) যদিও সেইম ওয়ার্কলোডে RP4 থেকে RP5 অনেক এফিশিয়েন্ট, আগেরটার ম্যাক্স পাওয়ার ১৫ওয়াট যেখানে RP5 ২৭ওয়াট। স্ট্যান্ডার্ড 5V 3A (15W) পাওয়ারে RP5 থেকে ফুল পারফরমেন্স আসবে না। তাই ওরা আলাদা 5V 5A (25W) অ্যাডাপ্টার সেল করছে।

MIPI connector দিয়ে ক্যামেরা ও ডিসপ্লে আউটপুট হবে। m.2 HAT দিয়ে লাগানো যাবে এসএসডি – এই মডিউলটি হবে আমার ফেভারেট 😋 PCIe এক্সটেনশনটি মানুষ কেমন সৃজনশীলতার সাথে কাজে লাগায় সেটাও একটি দেখার অপেক্ষা!

দাম ও প্রাপ্যতা

Raspberry Pi 5 এর দাম কত? 

রাস্পবেরী পাই ফাইভের দাম নির্ধারন করা হয়েছে ৪জিবি ভার্শনের জন্য ৬০ ডলার, ৮জিবি ভার্শনের জন্য ৮০ ডলার।

রাস্পবেরী পাই ৪ মডেল বি ৪জিবি ও ৮জিবি ভার্শনের দাম যথাক্রমে ৫৫ ও ৭৫ ডলার। আমার মতে নতুন আপগ্রেডেড পার্টসগুলো ৫ ডলার বৃদ্ধিকে যথেষ্ট জাস্টিফাই করে। এটাই তো রাস্পবেরীর একটি ইউনিক সেলিং পয়েন্টঃ সুলভ মূল্য।

তবে বাংলাদেশের দামাদামির হিসেব যে অফিশিয়াল প্রাইসিংয়ের বাইরে সেটা ত বলাই বাহুল্য। যেখানে পাই ফোর মডেল বি’এর দাম ১৫-২০ হাজার সেখানে পাই ফাইভ ৮/১০ হাজারে আশা করা বোকামি।

Raspberry Pi 5 কবে মার্কেটে আসবে? 

অফিশিয়াল সোর্স বলছে, Raspberry Pi 5 অক্টোবরের শেষে মার্কেটে আসবে। বাংলাদেশী প্রোভাইডার রোবোটিক্সবিডির তথ্যমতে, নভেম্বর থেকে দেশের বাজারে পাওয়া যাবে Raspberry Pi 5.

Raspberry Pi 5: একটি নতুন কম্পিউটিং যুগের সূচনা

যতই দিন যাচ্ছে প্রযুক্তি তত অ্যাডভান্সড হচ্ছে, দরকার পড়ছে আরো পাওয়ারফুল একইসাথে দক্ষ সিস্টেমের। একসময় অবসর শখের DIY প্রজেক্টের সঙ্গী হলেও রাস্পবেরী পাই এখন ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রোটোটাইপিং সেক্টরে বহুলাংশে ব্যবহৃত।

প্রতিদ্বন্দ্বী বোর্ডগুলো থেকে পাইয়ের একটা বড় কমতি ছিল প্রসেসিং পাওয়ার। এবার হৃষ্টপুষ্ট একটা ভিত্তি দেয়ায় ভালো প্রসেসিং ক্ষমতার দরকার এমন প্রজেক্টেও নতুন মডেলটি এঁটে যাবে।

 

রাস্পবেরী পাইয়ের ওপেন সোর্স প্রকৃতি, ব্যাকওয়ার্ড কম্প্যাটিবিলিটি, প্রতিযোগিতামূলক প্রাইসিং, ও সুন্দর কমিউনিটির জন্য এটি আরো বহুকাল প্রযুক্তিপ্রেমীদের মনে পাকাপোক্ত স্থান ধরে রাখবে বলেই আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

রাস্পবেরী পাই দিয়ে বানানো আপনার উল্লেখযোগ্য প্রজেক্ট কোনটি? নাকি নেই কিন্তু ভবিষ্যতে প্ল্যান করছেন? আমার কাছে পাই ফাইভ তো ভালোই লাগলো, শুধু দামটা মেরে দিলো এদেশের ইকোনোমি।

সে যাই হোক, বাঁধার কারনে তো অগ্রগতি থেমে থাকে না। হয়তো কোনো একদিন এদেশের কোনো এক গ্যারেজ থেকে সূচনা হবে আরেক বৈপ্লবিক কোনো শিল্পকর্মের, কে বলতে পারে!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button