News

ফিলিস্তিনির প্রতি সংহতি জানিয়ে গণঅধিকার পরিষদের সমাবেশ

ফিলিস্তিনির প্রতি সংহতি জানিয়ে সমাবেশ করেছে গণঅধিকার পরিষদ (নুর)। শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ সমাবেশ হয়। গণঅধিকার পরিষদ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ সমাবেশের আয়োজন করে।

সংহতি সমাবেশে গণঅধিকার পরিষদের সভাপতি নুরুলহক নুর বলেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনি ইস্যুতে বিবৃতি দিয়ে সরকার দ্বিচারিতা করেছে। সরকার দুই পক্ষকে যুদ্ধ বিরতির কথা বলেছে। এখানে দুই পক্ষ যুদ্ধ করছে না। যুদ্ধ বন্ধ করতে ইসরায়েলকে বলতে হবে। কারণ তারা যুদ্ধজাহাজ, বিমান, রণতরী, অস্ত্র সুসজ্জিত বাহিনী নিয়ে ফিলিস্তিনের নিরীহ জনগণের উপর নির্যাতন চালাচ্ছে। নারী-শিশু-নামাজ পড়তে গিয়েও দখলদার ইসরায়েলিদের হামলার শিকার হচ্ছে। যখন তারা আত্নরক্ষার্থে প্রতিরোধ করছে, তখন আন্তর্জাতিক কিছু গণমাধ্যম সেটাকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে প্রচার করছে। বিশ্ব সম্প্রদায়কে এই এক পাক্ষিক চশমা পরিহার করে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়াতে হবে। স্বাধীন ফিলিস্তিনই মধ্যপ্রাচ্যে সংকটের সমাধান।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘আমেরিকার মুরব্বিদের সাথে বুঝাপড়া হয়ে গেছে। পিটার হাস কিছু করতে পারবে না।’ এর আগে বলেছেন দিল্লী তাদের সাথে আছে। অর্থাৎ তারা অবৈধভাবে ক্ষমতায় থাকতে তলে তলে ইসরায়েল ও ভারতের সাথে সমঝোতা করেছে। সরকার ইসরায়েলের সাথে সমঝোতা করেছে তাদের ক্ষমতায় আসতে সহযোগিতা করলে তারা ইসরায়েলকে বাংলাদেশে কনস্যুলেট বা দূতাবাস খোলার ব্যবস্থা করে দিবে। তারই অংশ হিসেবে পাসপোর্ট থেকে একসেপ্ট ইসরায়েল তুলে দিয়েছে। এই ভিনদেশী দখলদারদের হটাতে না পারলে বাংলাদেশও আরেকটা ফিলিস্তিন হবে।

গণঅধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ রাশেদ খান বলেন, নিপীড়িত নির্যাতিত ফিলিস্তিনের জনগণের প্রতি আমাদের সমর্থন রয়েছে। দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েল ফিলিস্তিনের নিরীহ নাগরিকদের হত্যা গুম খুন করছে, বোম্বিং করে ফিলিস্তিনকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করেছে। পুরো বিশ্ববাসীকে ফিলিস্তিনের নাগরিকদের পাশে দাঁড়াতে হবে।

প্রেসক্লাবের সামনে সংহতি সমাবেশ শেষে এক মিছিল নিয়ে পল্টন, পানিরট্যাংকি, নাইটিংগেল মোড় ঘুরে পানির ট্যাংকি মোড়ে এসে শেষ হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এএইচ/আইজে

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button