Tech

ইউএসবি টাইপ সি সম্পর্কিত যে তথ্য আপনার জানা দরকার

আইফোন সহ বর্তমান সময়ের সকল স্মার্টফোনই চার্জিং অথবা ডাটা ট্রান্সফার করার জন্য ইউএসবি সি পোর্ট ব্যবহার করে থাকে। এর ফলে আপনার কাছে প্রত্যেক টেক ডিভাইসের জন্য সঠিক ক্যাবল রাখা পূর্বের তুলনায় অনেক বেশি সহজ হয়ে গেছে। এন্ড্রয়েডের মাইক্রো ইউএসবি এবং আইফোনের লাইটনিং ক্যাবলের পরিবর্তে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট ব্যবহারের ফলে পূর্বের তুলনায় এখন চার্জিং এবং ডাটা ট্রান্সফারের স্পিড আরো দ্রুত হয়ে গেছে। আমাদের আজকের আর্টিকেলে আমরা ইউএসবি সি পোর্ট এবং এর মাধ্যমে দ্রুত চার্জ দেওয়ার প্রক্রিয়া এবং সকল ডিভাইসে ইউএসবি সি পোর্ট কেন ব্যবহার করা হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো। 

কেন ইউএসবি সি পোর্ট এ সুইচ করা উচিত?

আপনি কোনো আপগ্রেড করেন অথবা না করেন না কেন কম্পিউটার, স্মার্টফোন কিংবা ট্যাবলেটের ক্ষেত্রে ইউএসবি সি পোর্ট আদর্শ হয়ে উঠেছে। এর ব্যবহারবান্ধব ডিজাইন আরো বেশি সুবিধা প্রদান করে থাকে এবং পুরানো ইউএসবি পোর্টের মতো সঠিক দিক নিয়ে কোনো ধরনের চিন্তা করতে হয় না।

অ্যাপলের লাইটনিং পোর্টের মতো ইউএসবি সি পোর্ট যেকোনো দিক দিয়েই প্লাগইন করা সম্ভব। ফলে কোনো ধরনের বাড়তি ঝামেলার সৃষ্টি হয় না। আপনি যদি একটি ইউএসবি সি পোর্টযুক্ত চার্জিং ব্রিক ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনি ক্যাবলের যেকোনো সাইড দিয়েই চার্জ দিতে পারবেন।

আপনি যদি কর্মস্থলে যাতায়ত করেন কিংবা মাঝে মাঝে কফি শপে বসে আপনার কাজ শেষ করে থাকেন তাহলে ইউএসবি সি ব্যবহার করা আপনার দৈনন্দিন বহনকেও আরো সহজ করে তুলবে। আপনি চাইলে একটি মাত্র পাওয়ার ব্রিক ব্যবহার করে আপনার সকল ইউএসবি ডিভাইস চার্জ করতে পারবেন। এছাড়া আপনার শুধুমাত্র একটি ইউএসবি ক্যাবলের প্রয়োজন পড়বে যেটি আপনি চাইলে এসএসডি এর সাথেও ব্যবহার করতে পারবেন। যার ফলে অন্যান্য সকল ইউএসবি ডিভাইস যেমন গেম কন্ট্রোলার, নেটওয়ার্কিং এডাপ্টার এবং আরো অনেক ডিভাইস সংযুক্ত করার জন্য হাব ব্যবহার করা যাবে। ইউএসবি সি অডিও এবং ভিডিও দুইটারই আউটপুট হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এছাড়া কিছু কিছু মনিটরে ইনপুট হিসেবেও ইউএসবি সি পোর্ট ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

ইউএসবি সি কি দ্রুত ডাটা ট্রান্সফার করতে পারে?

ইউএসবি সি একটি স্ট্যান্ডার্ড থেকে কানেক্টর হিসেবে বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে এবং এর ক্যাবল এবং পোর্টগুলোতে বিস্তৃত ক্ষমতা থাকতে পারে। অনেক ইউএসবি সি তারগুলো পুরানো ইউএসবি 2.0 স্ট্যান্ডার্ডের সাথে আটকে আছে যেগুলোতে শুধুমাত্র ৪৮০ মেগাবিট পার সেকেন্ড পর্যন্ত গতিতে ডাটা ট্রান্সফার করা সম্ভব। কিন্তু ইউএসবি 3.0 সেই তুলনায় অনেক দ্রুত ডাটা ট্রান্সফার করতে পারে তবে এটি কিছুটা জটিল। ইউএসবি 3.0 স্ট্যান্ডার্ড ৫ গিগাবিট পার সেকেন্ড, ১০ গিগাবিট পার সেকেন্ড এবং ২০ গিগাবিট পার সেকেন্ডে উপলব্ধ রয়েছে।

আপনি আপনার কম্পিউটারে যে পোর্ট ব্যবহার করবেন সে পোর্টে অবশ্যই আপনার ক্যাবলের মতো দ্রুত গতিতে ডাটা ট্রান্সফার সমর্থন করতে হবে। আপনাকে সম্পূর্ণ ২০ গিগাবিট ডাটা ট্রান্সফার করার জন্য ক্যাবলের পাশাপাশি ভালো মানের কম্পিউটারের প্রয়োজন পড়বে। 

থান্ডারবোল্ট কি?

ইন্টেলের ব্যবহৃত থান্ডারবোল্ট টেকনোলজি ইউএসবি সি কানেক্টর ব্যবহার করে থাকে। উদাহরণস্বরূপ থান্ডারবোল্ট 4 যেটি 4K ভিডিও সাপোর্ট করার পাশাপাশি ৬০ হার্জে দুইটি মনিটর ব্যবহার করা যায়। থান্ডারবোল্ট 5 এ ন্যূনতম ৮০ গিগাবিট পার সেকেন্ড পর্যন্ত বাইডিরেকশনাল ট্রান্সফার স্পিড রয়েছে। এছাড়া সঠিক হার্ডওয়্যার ব্যবহার করলে ২৪০ ওয়াট পর্যন্ত চার্জ দেওয়ার মতো সুবিধা পাওয়া যায়। এগুলোতে বহিরাগত গ্রাফিক্স কার্ডের জন্য দ্বিগুণ পরিমাণ ব্যান্ডউইথ পাওয়া যায় যা গেমারদের কাছে অনেক বেশি জনপ্রিয়। 

ব্যাটারি কি দ্রুত চার্জ দেওয়া সম্ভব?

আপনার ফোনে চার্জ দেওয়ার গতি মূলত আপনি কি ডিভাইসে চার্জ দিচ্ছেন এবং কোন পাওয়ার সোর্স ব্যবহার করছেন সেটির উপর নির্ভর করে থাকে। ফোনের ক্ষেত্রে এটি মূলত ১০০ ওয়াটের নিচে হয়ে থাকে। স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 এর মতো ফোন গুলোতে ২৫ ওয়াটের ক্ষমতা সম্পন্ন চার্জিং ব্যবস্থা থাকলেও অন্যান্য অনেক ফোনেই  ৪৫ ওয়াট পর্যন্ত চার্জিং ক্ষমতার সুবিধা রয়েছে। এছাড়া যেসকল কম্পিউটারে ইউএসবি সি পোর্ট যুক্ত রয়েছে সেগুলো খুব দ্রুত সময়ে চার্জ দিয়ে থাকে। এসব ক্ষেত্রে কিছু কিছু ডিভাইস ৬০ ওয়াটেরও বেশি ক্ষমতা সম্পন্ন হয়ে থাকে। উদাহরণস্বরূপ ম্যাকবুক ল্যাপটপ এবং ক্রোমবুক ইউএসবি সি পোর্ট ব্যবহার করে ফোন বা ট্যাবলেটের তুলনায় দ্রুত চার্জ প্রদান করে থাকে। 👉 আইফোন ১৫ সিরিজ এলো উন্নত ক্যামেরা ও USB-C নিয়ে

ব্যাটারি চার্জ প্রদানের ক্ষেত্রে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এর তাপমাত্রা। একটি ব্যাটারিতে যত ইচ্ছা ততো চার্জ প্রদানের ক্ষেত্রে ব্যাটারির তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার অনেক বড় একটা চান্স থেকে যায়। এসব ক্ষেত্রে ব্যাটারির চার্জিং স্পিড কমানোর মাধ্যমে তাপমাত্রা কমিয়ে নিয়ে আসার ব্যবস্থা এবং পুনরায় সর্বোচ্চ গতিতে চার্জ দেওয়ার ব্যবস্থা তৈরি করার প্রয়োজন হয়ে থাকে। আপনি যে ক্যাবল ই ব্যবহার করে থাকেন না কেন আপনার ব্যাটারি একটি নির্দিষ্ট ক্ষমতা সম্পন্ন গতিতে চার্জ নিতে পারবে।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

usb c cable

নতুন এডাপ্টারের প্রয়োজন পড়বে?

আপনার কাছে যদি ইউএসবি এ পোর্টের এডাপ্টার থাকে তাহলে চিন্তার কোনো কারন নেই। আপনি শুধুমাত্র একটি ইউএসবি এ টু ইউএসবি সি ক্যাবল ব্যবহার করে এসকল পাওয়ার এডাপ্টার ব্যবহার করতে পারবেন। তবে পুরানো সকল ধরনের এডাপ্টার অনেক ধীর গতিতে চার্জ প্রদান করে থাকে। এসকল ক্ষেত্রে ১৫ ওয়াটের বেশি ক্ষমতা সম্পন্ন দ্রুত গতির চার্জিং এডাপ্টার ব্যবহার করা উচিত। 

আপনার ডিভাইসের চার্জিং স্পীডের ক্ষেত্রে সেরাটা বের করে নিয়ে আসার ক্ষেত্রে আপনার এমন চার্জারের প্রয়োজন যেটি আপনাকে সবসময় পাওয়ার আপ করে রাখতে পারবে। আপনার ডেস্কে যদি সকল ধরনের টেক ডিভাইস যেমন ল্যাপটপ, ট্যাবলেট, মোবাইল এক্সেসরিজ থাকে যেগুলো আপনার একসাথে চার্জ দেওয়ার প্রয়োজন হয় তাহলে আপনি একটু বেশি ওয়াটের পাওয়ার এডাপ্টার ব্যবহার করতে পারবেন। যেখানে আপনি সকল ডিভাইসে সঠিকভাবে দ্রুততার সাথে চার্জ দেওয়ার পাশাপাশি একসাথে চার্জ পর্যন্ত দিতে পারবেন।

ইউএসবি সি পোর্টের কিছু সাধারন সমস্যা থাকলেও চার্জিং এর জগতে এটিকে টক্কর দেওয়ার মতো কেউ নেই। ইউএসবি সি এর সকল ধরনের সুবিধার কারনে এটি বহু সময় ধরে প্রযুক্তির জগতে বিরাজমান থাকবে বলে আশা করা যায়। ইউএসবি সি সম্পর্কিত আমাদের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিতে পারবেন। এছাড়াও নিত্য নতুন টেকনোলজি বিষয়ক নানা ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং প্রয়োজনীয় টিপস এন্ড ট্রিকস পেতে চোখ রাখুন আমাদের এই ওয়েবসাইটে। 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button