Tech

আইফোনের সাথে ব্যবহারের জন্য সেরা এক্সেসরিজের তালিকা

বর্তমান সময়ে নতুন একটি আইফোন ব্যবহার করতে চায় না এমন মানুষের সংখ্যা অনেক কম। নতুন নতুন টেকনোলজি ব্যবহারের সাথে সাথে আইফোনের বিক্রয়ের হারও তুলনামূলকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। আপনি যদি সম্প্রতি একটি আইফোন ক্রয় করে থাকেন তাহলে সেটি দিয়ে সেলফি কিংবা ওয়েব ব্রাউজিং করার আগে অর্থাৎ ভালোভাবে চালানোর আগে এর জন্য কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ক্রয় করে নিন। 

এসকল জিনিসপত্র আপনার আইফোনকে সুরক্ষা দেওয়ার পাশাপাশি আপনার লাইফস্টাইলেও পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারে। আপনি আপনার বাজেটের উপর নির্ভর করে আপনার আইফোনের সাথে কিছু এক্সেসরিজ ব্যবহার করতে পারেন। আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে আমরা আইফোনের সাথে ব্যবহার উপযোগী কিছু এক্সেসরিজ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো। 

এংকার ম্যাগসেফ চার্জার স্ট্যান্ড

আপনি যদি আপনার আইফোন, এয়ার পডস ও অ্যাপল ওয়াচ একই সাথে একটি সহজ উপায়ে চার্জ দিতে চান তাহলে বাজারে অনেক ধরনের স্ট্যান্ড পাওয়া যায়। তবে সব স্ট্যান্ডই একইভাবে তৈরি করা হয়নি। এংকারের ম্যাগ সেফ চার্জার স্ট্যান্ড বাকি সকল প্রতিযোগীর থেকে অনেক দূর এগিয়ে কেননা এতে আইফোনের জন্য ১৫ ওয়াটের ম্যাগ সেফ চার্জারের পাশাপাশি প্রত্যেকটি ডিভাইসের জন্য আলাদাভাবে জায়গা রেখে দেওয়া হয়েছে। একইরকম অন্য সকল পন্যের মধ্যে একই সাথে সকল ডিভাইসে চার্জ দেওয়ার ক্ষমতা বেশ বিরল। এছাড়াও আপনি আপনার আইফোনকে নিজের পছন্দমতো আড়াআড়ি কিংবা সোজাসুজি যেকোনো উপায়ে রেখে চার্জ দিতে পারবেন। ফলে আইফোনের নতুন স্ট্যান্ড বাই মোড ব্যবহার করা সম্ভব হবে। 

২৪০ ওয়াট ইউএসবি সি চার্জার ক্যাবল

আপনি যদি নতুন আইফোন ১৫ এর মালিক হন তাহলে আপনি অবশ্যই অ্যাপলের নতুন ক্যাবলটি আপনার সংগ্রহে রাখতে চাইবেন। ২ মিটার লম্বা এবং বুননে ডিজাইনে করা উক্ত ক্যাবলের উভয় দিকেই ইউএসবি সি কানেক্টর ব্যবহার করা হয়েছে। ক্যাবলটির ২৪০ ওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন চার্জিং এবিলিটি এব দ্রুত ট্রান্সফার স্পিড আপনার আইফোন ডিভাইসে জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি এক্সেসরিজ বলে বিবেচিত হবে। যদি কেউ ১ মিটার দৈর্ঘ্যের ক্যাবল কিনতে চায় অ্যাপল সেই সুবিধাও রেখেছে। 

এয়ারপডস প্রো ২

আপনি যদি ফ্যান্সি একটি আইফোন ক্রয় করার জন্য প্রচুর অর্থ খরচ করতে পারেন তাহলে আপনি চাইলে এর সাথে মানানসই একটি এয়ারপডস কিনে নিতে পারেন। অ্যাপলের এয়ারপডস প্রো ২ এ ব্যাপারে আপনার প্রথম পছন্দ হতে পারে। এটিতে H2 হেডফোন চিপ ব্যবহার করা হয়েছে এবং চার্জিং কেসে ম্যাগ সেফ চার্জিংয়ের পাশাপাশি ইউএসবি সি ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও এতে U1 চিপ ব্যবহার করা হয়েছে। আপনি একটি মাত্র চার্জে একটানা প্রায় ৬ ঘন্টা এটি ব্যবহার করতে পারবেন। আর যদি আপনি কেসসহ ব্যবহার করেন তাহলে এটি প্রায় ৩০ ঘন্টার মতো সেবা প্রদান করবে। এয়ারপডস প্রো ২ সেটি করা খুবই সহজ, আপনাকে শুধুমাত্র কেস খুলে দিতে হবে এবং বাকি কাজ আপনার আইফোন সেরে নিবে।

এমাজন ব্যাসিকস ৩০ ওয়াট ওয়ান পোর্ট ইউএসবি চার্জার

মাঝে মাঝে আপনার একটি অতিরিক্ত চার্জারের প্রয়োজন হয় কিন্তু আপনি এর পিছে অনেক অর্থ খরচ করতে চান না। সৌভাগ্যক্রমে আমাজনের এই চার্জারটি আপনার অনেক উপকার করবে। এটি ৩০ ওয়াট পাওয়ার এবং ইউএসবি পাওয়ার ডেলিভারি টেকনোলজি ব্যবহার করে আপনার ডিভাইসকে সুপার ফাস্ট চার্জ করতে পারে। এটি অ্যাপল এবং স্যামসাং দুই ধরনের ডিভাইসের সাথেই কাজ করে থাকে। 

ওটারবক্স ওয়্যারলেস চার্জার ভেন্ট মাউন্ট ২.০

শক্তিশালী ম্যাগনেটিক এলাইনমেন্ট এবং এটাচমেন্ট সম্বলিত গাড়ির এই ওয়্যারলেস চার্জার ম্যাগ সেফ এবং Qi ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট করে। চার্জিং এর সুবিধার জন্য এতে ৬.৬ ফুটের ইউএসবি সি টু ইউএসবি সি ক্যাবল ব্যবহার করা হয়েছে।এটিতে ২০ ওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন ফাস্ট চার্জিং এর সুবিধা রয়েছে। তবে ওয়্যারলেস চার্জিং অপশনের ক্ষেত্রে ১৫ ওয়াট আউটপুট থেকে ৭.৫ ওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন চার্জিং করার ব্যবস্থা রয়েছে। 

শেজি একের ভিতর চার ইউএসবি সি ক্যাবল লাইটনিং ক্যাবল

যেহেতু অ্যাপল তাদের আইফোন ১৫ থেকে লাইটনিং ক্যাবলের পরিবর্তে ইউএসবি সি ক্যাবল ব্যবহার করা শুরু করেছে তাই আপনার কাছে এখন একাধিক ক্যাবল থাকা জরুরি। এক্ষেত্রে চিন্তার কোনো কারণ নেই। কেননা শেজির একের ভিতর চার ক্যাবলটি আপনার সকল সমস্যার সমাধান করে দিবে। এই ক্যাবলে ইউএসবি এ টু ইউএসবি সি, ইউএসবি এ টু লাইটনিং, ইউএসবি সি টু ইউএসবি সি এবং ইউএসবি সি টু লাইটনিং এই চারটি ক্যাবল একসাথে করা রয়েছে। এটি ৬০ ওয়াটের পাওয়ার ডেলিভার করে যার ফলে আপনার ঘরের যেকোনো রুমে এটি ব্যবহার করা যাবে এছাড়াও এটি কারপ্লেও সাপোর্ট করে থাকে।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

iPhone 14 pro

এংকার ইউএসবি সি ক্যাবল

আপনি যদি এই পণ্যটি ক্রয় করার চিন্তা করে থাকেন তাহলে আপনি এর সাথে একটি নয় দুইটি ইউএসবি সি টু ইউএসবি সি ক্যাবল পেয়ে যাবেন। যেটি দৈর্ঘ্যে প্রায় ৬ ফুটের মতো হয়ে থাকে। যদি এটি একটি কম্পাটিবল চার্জিং ব্রিকের সাথে ব্যবহার করা হয় তাহলে এটি ১০০ ওয়াট পর্যন্ত চার্জিংয়ের সুবিধা প্রদান করে থাকে। এই ক্যাবলগুলোকে দীর্ঘায়ু করতে নাইলন ম্যাটেরিয়ালের ব্যবহার করা হয়েছে যেটি দৈনন্দিন ব্যবহারের সকল বাধা অনায়েসেই পার করে ফেলতে পারবে। এই ক্যাবলগুলোও বিভিন্ন দৈর্ঘ্যের পাওয়া যায়। 👉 নতুন আইফোনের সাথে যা অবশ্যই কেনা উচিত

এংকার প্রাইম ৬৭ ওয়াট ইউএসবি সি চার্জার

এটি চার্জিং জগতের সুইস আর্মি নাইফের মতো কাজ করে। কেননা এতে দুইটি ইউএসবি সি পোর্ট এবং একটি ইউএসবি এ পোর্ট ব্যবহার করা হয়েছে। যার ফলে আপনার ঘরে কিংবা কাজের স্থানে যেকোনো জায়গায় চার্জিং এর সকল প্রয়োজনীয়তা পূরণ হয়ে যাবে। এছাড়াও আপনি একটি ডিভাইস চার্জ দেওয়ার সময় ৬৭ ওয়াট পর্যন্ত পাওয়ার ব্যবহার করতে পারবেন। এমনকি আপনি যদি দুইটি পোর্টও ব্যবহার করে থাকেন তারপরও প্রায় ৬৫ ওয়াট পর্যন্ত ব্যবহার করা সম্ভব। আইফোন কিংবা ম্যাক বুক চার্জ করার ক্ষেত্রে এটি একটি সত্যিকারের জেম হিসেবে বিবেচিত হয়।

আইফোন ক্রয় করার পরে এর সাথে মানানসই কিছু ডিভাইস আলাদা করে কিনে নেওয়া খুব জরুরি। এতে করে আপনার আইফোনের সঠিক ইউটাইজেশন করা সম্ভব। আইফোনের সাথে ব্যবহার উপযোগী কিছু এক্সেসরিজ সম্পর্কে আমাদের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিতে পারবেন। এছাড়াও নিত্য নতুন টেকনোলজি বিষয়ক নানা ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং প্রয়োজনীয় সকল টিপস এন্ড ট্রিকস পেতে চোখ রাখুন আমাদের এই ওয়েবসাইটে। 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button