Tech

ছাত্র অবস্থায় অনলাইন ও অফলাইন ইনকামের উপায়

আমাদের দেশে এখন ছাত্র অবস্থায় অনেকেই নিজেদের উপার্জন করা অর্থ দিয়ে তাদের খরচ চালায়। এটি যেমন আর্থিকভাবে তাদেরকে লাভবান করছে নিজস্ব স্কিল উন্নয়নের ক্ষেত্রেও এটি অনেক ভালো অবদান রাখছে। আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে আমরা ছাত্র অবস্থায় অনলাইন হোক বা অফলাইন কিভাবে টাকা উপার্জন করা যাবে সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো। 

ছাত্ররা পার্ট টাইম জব কেন করবেন? কি কি লাভ হবে?

ছাত্ররা বা স্টুডেন্টরা পার্ট-টাইম জব করার নানান কারণ থাকতে পারে। তবে বেশিরভাগ ছাত্রদের ক্ষেত্রেই পড়াশোনার পাশাপাশি পার্ট-টাইম কাজ করার মূল উদ্দেশ্য সাইড ইনকাম বা অর্থ উপার্জন করা হয়ে থাকে। ছাত্ররা যখন পার্ট-টাইম ইনকাম করে থাকেন, তখন কেবল অর্থ উপার্জনের বাইরেও অন্যান্য প্রচুর সুবিধা এবং লাভ গুলো পেয়ে থাকেন যেগুলি ভবিষ্যতে তাদের প্রচুর কাজে লাগতে পারে।

আর্থিক স্বাধীনতা

বেশিরভাগ ছাত্ররা এক্সট্রা টাকা ইনকামের উদ্দেশ্যে পার্ট-টাইম জব গুলো করে থাকেন এবং সেভাবেই তারা নিজেদের আর্থিকভাবে সমর্থন করে। ইনকাম করা অতিরিক্ত অর্থ বা টাকাগুলো তারা নানান কাজে লাগানোর সুযোগ পান। যেমন, শিক্ষাগত খরচ, প্রতিদিনের খরচ, ভবিষ্যতের লক্ষ্যগুলির জন্য সঞ্চয় ইত্যাদি। ফলে, ছাত্রদের মধ্যে অনেক আগে থেকেই আর্থিক বা অর্থায়ন বিষয়ক জ্ঞান বিকশিত হতে শুরু করে।

শিক্ষাগত খরচ

বর্তমান সময়ে ভালো এবং উচ্চ শিক্ষাগত খরচগুলো প্রচুর পরিমানে বৃদ্ধি পেয়েছে। সেক্ষেত্রে, একটি পার্ট-টাইম জব করার মাধ্যমে অনেক ছাত্র-ছাত্রীরা নিজের পড়াশোনার সাথে জড়িত নানান খরচগুলির ভার নিতে পারেন। বই কেনা, টিউশনির ফিস, কলেজে আসা যাওয়ার খরচ, ইত্যাদি খরচগুলো সেভাবে মেটাতে পারলেও অনেক কাজে দেয়।

কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন

পার্ট-টাইম জব করার মাধ্যমে স্টুডেন্টরা কাজের বাস্তব অভিজ্ঞতা অর্জন করার পাশাপাশি জরুরি দক্ষতাগুলোও নিজেদের মধ্যে বিকশিত করার সুযোগ পেয়ে থাকেন, যেগুলি তাদের ভবিষ্যত ক্যারিয়ারের জন্যে সত্যি মূল্যবান এবং যথেষ্ট কার্যকর প্রমাণিত হতে পারে। যখন কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয় জীবন থেকেই আপনার কাছে কাজের অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতা থাকবে, তখন পড়াশোনা শেষে একটি ফুল-টাইম চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে এই অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা আপনার জন্যে প্লাস পয়েন্ট হিসেবে কাজ করবে।

নেটওয়ার্কিং এর সুযোগ

পার্ট-টাইম জবের মাধ্যমে ছাত্ররা বিভিন্ন মানুষের সাথে যোগাযোগ করার সুযোগ পান। যেমন ধরুন সহকর্মী, সুপারভাইজার এবং কাস্টমার ইত্যাদি। আর এই ধরণের যোগাযোগের মাধ্যমে আপনি নিজের জন্য একটি মূল্যবান নেটওয়ার্কিং সুযোগ তৈরি করতে পারবেন। ভবিষ্যতে এই চেনা পরিচিত লোকেরা নানান ভাবে আপনার উপকারে লাগতেই পারে।

বেসিক এবং জরুরি দক্ষতা

স্টুডেন্টরা একটি পার্ট-টাইম জব করার মাধ্যমে নানান বেসিক স্কিল শেখার সুযোগ পেয়ে থাকেন। যেমন, যোগাযোগ, টিমওয়ার্ক, সমস্যার সমাধান করা, গ্রাহক পরিষেবা, বেসিক কম্পিউটার স্কিল ইত্যাদি। আর এই বেসিক দক্ষতাগুলি জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে সব সময় কাজে লেগেই থাকে।

ব্যক্তিগত খরচ

পার্ট-টাইম জব করার মাধ্যমে স্টুডেন্টরা নিজেদের ব্যক্তিগত খরচ গুলি আরামে কভার করে নিতে পারেন। যেমন ধরুন, বিনোদন, ভ্রমণ, বা নিজের শখ পূরণের জন্যে মা-বাবা থেকে সবসময় টাকা চাইতে বা নিতে হবেনা। এতে, যেকোনো ক্ষেত্রেই শুধুমাত্র নিজেদের পিতামাতার উপর নির্ভর না করে নিজের শখ গুলো নিজেই পূরণ করতে পারবেন ছাত্ররা।

স্টুডেন্টদের জন্য সেরা কিছু পার্ট টাইম অনলাইন জবের আইডিয়া

স্টুডেন্টরা করতে পারবেন এমন প্রচুর অনলাইন পার্ট-টাইম জবের সুযোগ গুলো বর্তমানে রয়েছে। পার্ট-টাইম টাকা ইনকাম করার এই অনলাইন জব গুলি প্রচুর ফ্লেক্সিবল এবং আপনি নিজের পছন্দের সময় এবং জায়গা বুঝে কাজ করতে পারবেন। এছাড়া, কাজ করার জন্যে আপনাকে কোথাও যেতেও হবেনা। ঘরে বসে নিজের খালি সময়ে একটি ল্যাপটপ/কম্পিউটার এবং ইন্টারনেটের ব্যবহার করে কাজ গুলো করতে পারবেন।

ফ্রিল্যান্সিং 

ছাত্ররা নিজেদের দক্ষতাগুলোকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন কোম্পানি এবং ক্লায়েন্টদের নিজের পরিষেবা গুলো প্রদান করার মাধ্যমে নিয়মিত ইনকাম করার সুযোগ পেতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিং যে কেউ করতে পারবেন এবং এক্ষেত্রে আপনার শুধুমাত্র একটি বিশেষ দক্ষতা জানা থাকলেও কাজ হয়ে যাবে। একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে আপনি কন্টেন্ট রাইটিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট, ভার্চুয়াল এসিস্ট্যান্ট, ভয়েস ওভার আর্টিস্ট, লোগো ডিজাইনার ইত্যাদি নানান ধরণের পরিষেবা গুলি প্রদান করতে পারবেন। 👉 মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং শেখার দারুণ কিছু উপায়

অনলাইন টিউটরিং

শিক্ষার্থীরা যদি কোনো বিশেষ বিষয়ে পারদর্শী হন, তাহলে একজন অনলাইন শিক্ষক হিসেবে ছাত্র-ছাত্রীদের একটি বা একাধিক বিষয়ে পড়াশোনা শেখাতে পারবেন। ইন্টারনেটে এমন নানান অনলাইন লার্নিং প্লাটফর্ম রয়েছে যেগুলিতে গিয়ে নিজের একটি একাউন্ট তৈরি করে শিক্ষক হিসেবে নিজেকে রেজিস্টার করতে পারবেন। এছাড়া, যদি এই ধরণের অনলাইন পড়াশোনা করানোর পোর্টালগুলি আপনার কাজে না লাগে, তাহলে জুম অ্যাপ এর মতো একটি গ্রুপ ভিডিও কল করার অ্যাপ ব্যবহার করার মাধ্যমে, অনলাইনে সরাসরি ছাত্রদের টিউশন ক্লাস দিতে পারবেন।

অনলাইন ডাটা এন্ট্রির কাজ 

স্টুডেন্টদের জন্যে নিজের খালি সময়ে ঝটপট কাজ করে টাকা ইনকাম করার একটি দারুন উপায় হলো অনলাইন ডাটা এন্ট্রি জবগুলো। এক্ষেত্রে আপনাকে দিয়ে দেওয়া ডাটা গুলিকে স্প্রেডশীট বা ডাটাবেজ এর মধ্যে প্রবশে করাতে হয়। তবে মনে রাখবেন, অনলাইনে এমন প্রচুর ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো, ডাটা এন্ট্রির কাজ দেওয়ার কথা বলে আপনার থেকে টাকা চাইবে। আবার অনেক সময় কিছু কিছু সাইটে কাজ করার পর টাকা না দিয়ে আপনাকে ব্লক করে দেওয়া হতে পারে।

কন্টেন্ট রাইটিং জব

স্টুডেন্টদের জন্য পার্ট টাইম জব হিসেবে কনটেন্ট রাইটিং বা ফ্রিল্যান্স ব্লগিং এর কাজটি কিন্তু প্রচুর জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। বর্তমানে প্রচুর ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনার পাশাপাশি নিজের খালি সময়ে এই কনটেন্ট/আর্টিকেল রাইটিং জবগুলো করার মাধ্যমে ভালো মানের পার্ট-টাইম ইনকাম করে নিতে পারছেন।

ইন্টারনেটে প্রচুর জনপ্রিয় এবং ছোট-বড় ব্লগ অথবা ওয়েবসাইট রয়েছে। এই ব্লগ সাইট গুলোতে নিয়মিত আর্টিকেল লিখে আর্টিকেল জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে প্রয়োজন হয় দক্ষ কনটেন্ট রাইটারদের। লেখালেখি করতে যদি পছন্দ করেন বা লেখালেখির কাজে অভিজ্ঞতা থাকলে প্রতিদিন একটি বা একাধিক ওয়েবসাইট এর জন্য আর্টিকেল লেখার মাধ্যমে ইনকামের দারুন সুযোগ আপনারা পাবেন।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

student income

স্টুডেন্টদের জন্য পার্ট টাইম জব করার অফলাইন উপায়

অফলাইন পার্ট টাইম জবগুলো কলেজে পড়াশোনা করেন এমন ছাত্রছাত্রীদের জন্য কাজ করে অর্থ উপার্জন করার পাশাপাশি মূল্যবান কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন করার ক্ষেত্রেও কাজে লেগে থাকে। চলুন, নিচে আমরা সেরা অফলাইন পার্ট-টাইম জব গুলোর বিষয়ে জেনে নিই যেগুলি স্টুডেন্টরা নিজের পড়াশোনার পাশাপাশি আরামে চালিয়ে যেতে পারবেন।

  • মোবাইল রিপেয়ারিং কাজ,
  • কম্পিউটার/ল্যাপটপ রিপেয়ারিং কাজ,
  • টিউশনি করিয়ে ইনকাম,
  • অফলাইন ডাটা এন্ট্রি জব,
  • ফুড ডেলিভারি করুন,
  • ওয়েব ডিজাইনিং এর কাজ করুন,
  • গ্রাফিক্স ও লোগো ডিজাইনিং কাজ,
  • ফিটনেস/জিম প্রশিক্ষকের জব,
  • কল সেন্টারে পার্ট-টাইম জব,
  • মোবাইলের সার্ভিস সেন্টারে কাজ করুন,
  • ক্যাটারিং স্টাফ হিসেবে কাজ করুন,
  • একাউন্টিং ফার্মে পার্ট-টাইম জব।

স্টুডেন্ট অবস্থায় পার্ট টাইম অনলাইন কিংবা অফলাইনে ইনকাম সম্পর্কে আমাদের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিতে পারবেন। এছাড়াও নিত্য নতুন টেকনোলজি বিষয়ক নানা ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং প্রয়োজনীয় সকল ধরনের টিপস এন্ড ট্রিকস পেতে চোখ রাখুন আমাদের এই ওয়েবসাইটে। 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button