Tech

স্যাটেলাইটের মাধ্যমে মোবাইল নেটওয়ার্ক দিবে স্টারলিংক

স্টারলিংক এর বহুল প্রতীক্ষিত স্যাটেলাইট সেলুলার সার্ভিস আগামী বছর মুক্তি পাবে বলা জানা যাচ্ছে। স্টারলিংক এর ওয়েবসাইটে এই ফিচার সম্পর্কে বিস্তারিত জানা গিয়েছে।

স্টারলিংক তাদের Direct-to-cell ফিচার এর জন্য আলাদা ওয়েবসাইট খুলেছে, এর থেকে আশা করা যায় স্পেসএক্স এর তৈরী এসএমএস সুবিধার সেলুলার সার্ভিস ২০২৪ সালের মধ্যে মুক্তি পাবে।

তবে যদি সহসাই আপনার বর্তমান ফোন ক্যারিয়ারকে বাদ দিয়ে স্টারলিংক ব্যবহারের কথা ভাবেন তাহলে সেটি আপাতত সম্ভব নয়। কেননা স্টারলিংক ভয়েস ও ডাটা কল সুবিধা আসতে আসতে ২০২৫ সাল পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।

গত বছরের আগস্ট মাসে সেলুলার ফিচার ঘোষণা করে স্টারলিংক। যুক্তরাষ্ট্রে টি-মোবাইল, কানাডাতে রজারস, অস্ট্রেলিয়াতে অপটাস এবং জাপান, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও সুইজারল্যান্ডে অন্যান্য মোবাইল অপারেটরের সাথে পার্টনারশিপ করেছে স্টারলিংক। অন্য দেশসমূহে Direct-to-Cell ফিচারটি আনতে হলে একই ধরনের পার্টনারশিপ করতে হবে স্টারলিংককে।

টি-মোবাইল এর সাথে স্টারলিংক এর কোলাবেরশনের ফলশ্রুতিতে সেকেন্ড-জেনারেশন স্যাটেলাইটের সাথে ব্যবহারের জন্য কিছু ৫জি স্পেকট্রাম আলাদা রাখা হবে। টি-মোবাইল ফোনগুলোতে শুরুতে স্টারলিংক এর ডিরেক্ট-টু-সেল, এরপর ২০২৫ সালে ভয়েস ও ডাটা ব্যবহার করা যাবে। দুইটি কোম্পানির মধ্যে যখন পার্টনারশিপ এর ঘোষণা প্রথম দেওয়া হয়, তখন জানানো হয় যুক্তরাষ্ট্রে  “near complete coverage” প্রদান করতে পারবে টি-মোবাইল।

যদিও স্টারলিংক এর এই নতুন সেবার দাম কিরকম পড়বে সে সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি, তবে ওয়েবসাইটে গিয়ে পেজের বোটমে থাকা কনটাক্ট ফর্ম ফিলাপ করার অপশন থাকছে। এই সেবা চালুর সময় আসলে স্টারলিংক ও স্পেসএক্স এর কাছ থেকে বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে।

গতবছর আইফোন ১৪ ও আইফোন ১৪ প্রো ম্যাক্স এর সাথে ইমারজেন্সি এসওএস সার্ভিস যুক্ত করে অ্যাপল। এই ফিচারটিকে ইমারজেন্সি অবস্থাতে যেখানে কোনো সেলুলার সিগনাল থাকবেনা সেক্ষেত্রে ব্যবহারের উপযোগী বলা হয়। 

এরই মধ্যে স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ চিপসেটে ইরিডিয়াম স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য স্ন্যাপড্রাগন স্যাটেলাইট ফিচার নিয়ে এসেছে কোয়ালকম। Defy স্যাটেলাইট লিংক নামে ১৪৯ ডলার দামের একটি ব্লুটুথ এক্সেসরি নিয়ে আসে মটোরোলা যা ব্যবহার করে যেকোনো ফোনে স্যাটেলাইট সেল সার্ভিস পাওয়া যাবে। 👉 স্টারলিংক স্যাটেলাইট ইন্টারনেট নিতে খরচ কেমন?

starlink cell net

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

টেক্সট মেসেজের পাশাপাশি স্যাটেলাইট ব্যবহার করে ভয়েস ও ডাটা ব্যবহার করার স্টারলিংক এর প্রতিশ্রুতি এই বিষয়টিকে অনন্য মাত্রায় নিয়ে যাবে। অ্যাপল ও কোয়ালকম এর মত একই ফিচার হলেও স্টারলিংক এর ইতিমধ্যে থাকা ৫,০০০ স্যাটেলাইট এর সাথে প্রতি মাসে যুক্ত হচ্ছে নতুন স্যাটেলাইট। অন্যান্য প্রতিযোগীর চেয়ে স্টারলিংক এই কারণে বেশ এগিয়ে থাকবে ও ভরসাযোগ্যও বটে। বলা হচ্ছে ডিরেক্ট-টু-সেল ফিচারটি মোবাইল ক্যারিয়ার প্রদত্ত সেবার কাছাকাছি নির্ভরযোগ্য সেবা প্রদান করবে।

যেহেতু স্টারলিংক তাদের ডিরেক্ট-টু-সেল সার্ভিস এর জন্য মোবাইল ক্যারিয়ারের সাথে পার্টনারশিপ করছে, তাই ধারণা করা যায় সেল ফোন প্ল্যানের সাথে এড-অন হিসেবে এই সেবা প্রদান করা হতে পারে। টেসলা মডেল ৩ ও আপকামিং সাইবারট্রাকেও স্টারলিংক এর ডিরেক্ট-টু-সেল সার্ভিস আসবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button