News

চীনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং মারা গেছেন

চীনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং শুক্রবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) বার্তাসংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

চীনের সরকারি সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া জানায়, কিছুদিন ধরে কমরেড লি কেকিয়াং সাংহাইয়ে বিশ্রামে ছিলেন। ২৬ অক্টোবর তিনি হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হন। সুস্থ করার সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে রাত ১২টা ১০ মিনিটে তিনি মারা যান।

২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী হয়ে গত মার্চ পর্যন্ত তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন। তার আগে ২০০৮ সালে তিনি উপপ্রধানমন্ত্রী হন।

দুই মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনকালে অর্থনৈতিক নীতি ও বিদেশি বিনিয়োগের দিকে লি বেশি মনোযোগ দেন। এ সময় তিনি ভারত ও পাকিস্তান সফর করেন।

লি চীনের অত্যন্ত মর্যাদাপূর্ণ পিকিং স্কুল অব ল থেকে স্নাতক পাস করেন। পরে অর্থনীতিতে ব্যুৎপত্তি লাভ করেন। সরকারি কর্মচারী হিসেবে চাকরি শুরু করেন।

১৯৮০-এর দশকে লি পার্টি কার্যক্রমে বেশি জড়িয়ে পড়েন। ছোট ছোট দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে পার্টির শীর্ষ পদে চলে আসেন।

১৯৫৫ সালে পূর্ব চীনের আনহুই প্রদেশের ডিংইয়ুয়ান কাউন্টিতে এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন লি। তার পিতাও পার্টি সদস্য ছিলেন। মাও সে তুয়ের সাংস্কৃতিক বিপ্লবের (১৯৬৬-১৯৭৬) সময় লি গ্রামে মাঠেঘাটে কাজ করেন।

গত মার্চে পার্টি কংগ্রেসে লি দায়িত্ব থেকে অবসরে যাওয়ার ঘোষণা দেন। তার ঘোষণা অনেককে অবাক করেছিল। কারণ তিনি চীনের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হবেন বলে আশা করা হয়েছিল।

বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেন, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে লির বিভিন্ন বিষয়ে মতবিরোধ দেখা দিয়েছিল। বিশেষ করে শির নিয়ম ভেঙে তিনবার প্রেসিডেন্ট ও পার্টিপ্রধান হওয়ার বিরোধী ছিলেন লি।


সূত্র : সিনহুয়া, আরটি, বিবিসি


বাংলাদেশ জার্নাল/ওএফ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button